ভোরবেলা গোসল করতে স্ত্রীকে নিয়ে গেল স্বামী, তারপর…

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ভোরবেলা গোসল করতে স্ত্রীকে নিয়ে গিয়ে স্ত্রীকে খুন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ শনিবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম খালেদা আক্তার (২৫)। সে উপজেলার পূর্ব দৈয়ারা গ্রামের মোবারক হোসেনের মেয়ে।

তার স্বামী ঘাতক রাজন (৩২) চৌদ্দগ্রাম উপজেলার সাতেশ্বর গ্রামের নুর আলমের ছেলে। এ ঘটনার পর থেকে রাজন পলাতক রয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার রাত আনুমানিক ১১টার দিকে শশুর বাড়ীতে আসে রাজন। একসাথে রাত্রি যাপনের পর ভোর রাতে স্বামী-স্ত্রী মিলে পুকুরে গোসল করতে যায়। সকালে পাশের বাড়ীর শিশুরা পুকুর পাড়ে খালেদার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার দিলে পরিবারের লোকজন তার মরদেহ উদ্ধার করে ঘরে নিয়ে যায়। পরে পুলিশে খবর দেয়া হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সকাল ১০টায় পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে।

নিহতের মা বকুল বেগমের অভিযোগ, ভোর রাতে খালেদাকে পুকুর পাড়ে নিয়ে রাজন হত্যা করে পালিয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে নাঙ্গলকোট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে রয়েছি। পরে বিস্তারিত জানাবো।