যে সমীকরণে জিম্বাবুয়েকে হারাতে পারে বাংলাদেশ

সিলেটের অভিষেক টেস্ট জিততে হলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের শেষ দু’দিন আরো ২৯৫ রান করতে হবে বাংলাদেশকে। জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ১০ উইকেট। তবে ম্যাচ নিয়ে না ভেবে মঙ্গলবার তিন সেশনের দিকেই জোড় দিচ্ছেন বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস। আগামীকাল ম্যাচের চতুর্থ দিন তিন সেশনেই জিততে চাইছেন তিনি। অর্থাৎ তিন সেশনেই জিম্বাবুয়ের উপর আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে চান রোডস।

তৃতীয় দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে রোডস বলেন, ‘আজ আমরা ম্যাচ জয়ের চিন্তা মাথায় রেখেই খেলতে নেমেছি। আমরা পাঁচটি সেশনই জিততে চেয়েছিলাম। আজ প্রথমটি সমান-সমান ছিলো। তবে দ্বিতীয় সেশনে আমরা জিতেছি। আমরা ম্যাচে ভালোভাবেই টিকে আছি এবং ভালো খেলার চেষ্টা করবো এবং আগামীকাল সবগুলো সেশনই জিততে চাই।’

তৃতীয় দিনের শেষভাগে বাংলাদেশের দুই ওপেনারের ব্যাটিং ভালো লেগেছে বাংলাদেশ কোচ রোডসের। আগামীকালও ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে বড় ইনিংস ও বড় জুটি দেখতে চান রোডস, ‘প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত বোলিং করা জিম্বাবুয়ের দুই বোলারের বিপক্ষে আজ শেষ বিকেলে অল্প সময়ে দারুন ব্যাট করেছে লিটন ও ইমরুল।

যদি আমরা তাদের ভালো খেলতে পারি, তবে রান করতে পারবো। আমরা বড় বড় জুটির আশা করছি। যদি আমরা তা অর্র্জন করতে পারি, তবে আমরা জিততে পারবো। এই ম্যাচের সবচেয়ে বড় রানটি আমাদের করতে হবে, এটি খুবই কঠিন কিন্তু অর্জন করা সম্ভব।’

এছাড়া টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথমবার ও বাংলাদেশের চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে ১০ বা ততোধিক উইকেট শিকারী তাইজুল ইসলামেরও প্রশংসা করলেন রোডস। তিনি বলেন, ‘এই পিচে তাইজুল ১১ উইকেট নিয়েছে, সত্যি প্রশংসনীয়। দারুনভাবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আবারো ফিরলো সে।’