আরেকজনের ছাড়পত্রে খালেদা জিয়াকে আদালতে নেয়া হয়েছে: ফখরুল

মেডিকেল বোর্ডের নয়, অন্য একজনের মাধ্যমে ছাড়পত্র লেখিয়ে খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে আদালতে হাজির করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৃহস্পতিবার নাইকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াসহ অন্য আসামিদের অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানি হয় পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে। আদালত থেকে বেরিয়ে এসে মির্জা ফখরুল এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে হাসপাতাল থেকে আদালতে হাজির করা হয়েছে। মেডিকেল বোর্ডে যেসব চিকিৎসক দায়িত্বে ছিলেন, তারা তাকে ছাড়পত্র দেননি। অন্য একজনের মাধ্যমে ছাড়পত্র লেখানো হয়েছে।

এক মাস দুদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে আজ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে অস্থায়ী আদালতে হাজির করা হয়।

ওই শুনানি শেষে আদালত থেকে বেরিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য এ কাজগুলো করছে। মেডিকেল বোর্ডের দায়িত্বপ্রাপ্তরা বলছেন, খালেদা জিয়াকে এ মুহূর্তে ছাড়া ঠিক হবে না।

এ সময় খালেদা জিয়ার মুক্তিও দাবি করেন বিএনপি মহাসচিব।

এদিকে ৩০ মিনিটের জন্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে আজ আদালতে আবেদন করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম ও খালেদার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া।

তাদের এ আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত বলেন, এটি জেলকোড পারমিট করতে হবে। এটি আমাদের এখতিয়ারের মধ্যে নেই।