কাতার ফেরত এক খাদ্দামার ‘চাপা কান্না’ এখন ‘অশ্রু’

কাতার থেকে সন্তানসম্ভবা হয়ে দেশে ফেরেন তিনি। এ তাঁর এক ‘বুকচাপা কান্না’। সে কান্না এবার ‘অশ্রু’ হয়ে ঝরছে। ছেলেসন্তানের মা হয়েছেন তিনি। আজ সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাঁর এই সন্তানের জন্ম হয়। গত বছরের ২৪ জুলাই কাতার থেকে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় দেশে ফিরে আসেন এই নারী।

দেশে ফেরার পর তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর জানাজানি হলে তাঁকে বাসা থেকে বের করে দেয় পরিবার। বিচারের আশায় ঢাকায় এসে বাংলাদেশে অবস্থিত কাতার দূতাবাসে যান তিনি। কিন্তু সেখানে কোনো অভিযোগ করতে না পেরে বিমানবন্দর এপিবিএন অফিসে গিয়ে বিষয়টি জানান। বিচার না পেলে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হবেন বলেও জানান তিনি।

এরপর এপিবিএন কার্যালয় থেকে সহায়তা চাওয়া হয় ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের। সেখান থেকে এপিবিএন ও প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের মাধ্যমে তাঁকে ব্র্যাক লার্নিং সেন্টারে নিয়ে আসা হয়। এরপর স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত হলে দীর্ঘ সহায়তার জন্য তাঁকে ঢাকা আহছানিয়া মিশন শেল্টার হোমে পাঠানো হয়।কাতারে শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হয়েছিলেন তিনি। এখন মা ও সন্তান দুজনই সুস্থ।