দুর্দান্ত ব্যাটিংয়েও দলকে জেতাতে পারলেন না মন্ত্রী!

দারুণ খেললেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। নিজ দলের হয়ে সর্বোচ্চ স্কোরটা এল তার ব্যাট থেকেই।

তবে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত প্রদর্শনী ম্যাচে বিসিবি কর্মকর্তা একাদশকে হারাতে পারেনি তার দল যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় একাদশ।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দলকে ৬০ রানে হারায় বিসিবি কর্মকর্তা একাদশ। আগে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৩৮ রান তুলেছিল বিসিবি কর্মকর্তা একাদশ। সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন সজল চৌধুরী। জবাবে ৪ উইকেটে ৭৮ রানে থামে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দল। দলীয় সর্বোচ্চ ৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান।

প্রতি বছরই স্বাধীনতা দিবস ও বিজয় দিবসে প্রদর্শনী ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজন করে বিসিবি। লাল দল ও সবুজ দলের মোড়কে জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটাররা খেলে থাকেন।

এবার একটু ভিন্নভাবে তা আয়োজন করা হয়। বিসিবির কর্মকর্তাদের সঙ্গে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের কর্তাদের মাঝে ম্যাচ। যে প্রস্তাবটি ছিল প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসানেরই।

তার নেতৃত্বে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় দলে খেলেছেন সচিব, উপ সচিব, জেলা কর্মকর্তা ও বিকেএসপির কোচরা।

এদিকে নাঈমুর রহমানের দুর্জয়ের নেতৃত্বে বিসিবি কর্মকর্তা একাদশের হয়ে খেলেছেন দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমন। ছিলেন বিসিবি পরিচালক আকরাম খান। সাবেক তারকা এনামুল হক মনি, হাসিবুল হোসেন শান্ত, তালহা জুয়ায়েররা ছিলেন।